শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:৫২ অপরাহ্ন

রক্তমাখা নৌকার পরের দিন চলনবিলে মিললো মাঝির ভাসমান মরদেহ

admin
  • আপডেট টাইম : শনিবার ২৮ আগস্ট, ২০২১
  • ৯১ বার পঠিত

 

নাটোর, ২৮ আগস্ট-
নাটোরের চলনবিলে নিখোঁজের ৩৬ ঘন্টা পর আরজু মিয়া (৩০) নামে নৌকার মাঝির ভাসমান মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এরআগে গতকাল নিখোজেঁর পর রক্তমাখা নৌকা উদ্ধার করা হলেও নিখোঁজই ছিল আরজু।
শনিবার (২৮ আগস্ট) সকালে গুরুদাসপুর উপজেলার বিলসা বিল থেকে ভাসমান অবস্থায় তার মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। তিনি সিংড়া উপজেলার চামারী ইউনিয়নের আনন্দনগর গ্রামের মো. কদম আলীর ছেলে।


নিখোঁজ আরজুর পরিবারের সদস্যরা জানান, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে আটটার দিকে আরজু মিয়ার সঙ্গে মুঠোফোনে তাঁদের শেষ কথা হয়েছিল। এরপর থেকে তাঁর ফোন বন্ধ ছিল। শুক্রবার দুপুরে গুরুদাসপুর উপজেলার হরদমা এলাকা থেকে রক্তমাখা অবস্থায় নৌকাটি উদ্ধার করা গেলেও আরজু নিখোঁজ ছিলো।
সিংড়ার চামারী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রশিদুল ইসলাম মৃধা বলেন, বৃহস্পতিবার (২৬ আগস্ট) বিকেলে বিলদহর ঘাট থেকে যাত্রীসহ নৌকা নিয়ে চলনবিলে বেড়ানোর উদ্দেশ্যে বের হন আরজু মিয়া। রাতে বাড়ি না ফেরায় স্বজনরা খোঁজাখুঁজি শুরু করেন। শুক্রবার বেলা দুইটার দিকে গুরুদাসপুর উপজেলার হরদমা এলাকায় আত্রাই নদ থেকে পরিত্যক্ত অবস্থায় নৌকাটির সন্ধান পাওয়া যায়।
সিংড়া সার্কেলের সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার জামিল আকতার বলেন, নৌকার মাঝি আরজু মিয়ার ভাসমান লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তার শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। প্রাথমিক তদন্তে হত্যাকান্ড বলে মনে হচ্ছে। সিআইডির ক্রাইম টিম বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ করেছে। তদন্ত শেষে বিস্তারিত জানানো হবে।
#

নিউজটি শেয়ার করুন


এ জাতীয় আরো খবর..